ঢাকা ০১:১৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারতে স্বর্ণের দামের নতুন রেকর্ড

বিশ্বের অন্যতম বড় বাজার ভারতে নতুন রেকর্ড ছুঁয়েছে সোনার দাম। গতকাল শুক্রবার (১৭ মার্চ) এক তোলা (১০ গ্রাম) সোনার দাম ৫৯ হাজার ৪৬১ রুপি পর্যন্ত পৌঁছায়। তবে দিনের শেষ দিকে সোনার লেনদেন হয় ৫৯ হাজার ৪২০ রূপিতে।

বৃহস্পতিবারের তুলনায় শুক্রবার সোনার দাম ২ দশমিক ৪৪ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। অপরদিকে ৩ শতাংশ বেড়ে প্রতি কেজি রূপার দাম দাঁড়ায় ৬৮ হাজার ৬৪৯ রূপিতে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য ইকোনোমিক টাইমস এসব তথ্য জানিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপের ব্যাংকগুলোতে বর্তমানে কিছুটা অস্থিরতা চলায় সোনার দাম বাড়তেই থাকবে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যমটি। এমনকি পূর্বের সব রেকর্ড ভেঙে প্রতি ভরি সোনা ৬০ হাজার রূপি পার হয়ে যেতে পারে বলে জানিয়েছেন অনুজ গুপ্ত নামের একজন অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞ ।

ভারতে এ বছরের শুরু থেকে গতকাল শুক্রবার পর্যন্ত সোনার দাম বেড়েছে ৪ হাজার ৩৬৬ রূপি। যা মোট দামের প্রায় ৮ শতাংশ। এরমধ্যে শুধুমাত্র মার্চেই বেড়েছে ৩ হাজার ৬২৮ রূপি বা ৬ দশমিক ৫১ শতাংশ।

স্বস্তিকা ইনভেস্ট লিমিটেডের অর্থনীতি বিষয়ক বিশেষজ্ঞ নীপেন্দ্র যাদব বলেছেন, ‘এ সপ্তাহে সোনার বাজারে অস্থিরতা দেখা দিতে পারে।’ তিনি জানিয়েছেন, ইতিমধ্যে দাম ৫৯ হাজার রূপি ছাড়িয়ে গেছে, যা তাদের ধারণার চেয়েও বেশি।

অপরদিকে শুক্রবার আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দাম প্রায় ২ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। বার্তাসংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, গত তিন বছরের মধ্যে সাপ্তাহিক দামে সবচেয়ে বড় উর্ধ্বগতি দেখা গেছে এদিন।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের স্পট বাজারে প্রতি আউন্স সোনার দাম ২ দশমিক ৮ শতাংশ বেড়ে ১ হাজার ৯৭১ দশমিক ৯৫ ডলার স্পর্শ করে। যা ২০২২ সালের এপ্রিলের পর সর্বোচ্চ। আর শুধুমাত্র এ সপ্তাহে দাম বেড়েছে ৫ দশমিক ৬ শতাংশ। ২০২০ সালের মার্চের পর যা সর্বোচ্চ। অপরদিকে ফিউচার বাজারে সোনার দাম ২ দশমিক ৬ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। এদিন প্রতি আউন্স সোনা লেনদেন হয় ১ হাজার ৯৭৩ দশমিক ৫০ ডলারে।

তাই ওয়াং নামের নিউইয়র্কের এক সোনা ব্যবসায়ী রয়টার্সকে জানিয়েছেন, ব্যাংকের অস্থিরতার কারণে সোনার দাম বাড়তেই থাকবে। কিন্তু যদি কেন্দ্রীয় ব্যাংক সুদের হার বাড়ানো স্থগিত করে তাহলে সোনার বাজারে স্থিতিশীলতা আসবে।

অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞ অনুজ গুপ্ত জানিয়েছেন, তার আশঙ্কা আগামী সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি আউন্স সোনার দাম ২ হাজার ডলার পার হয়ে যেতে পারে।

ট্যাগস

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

ভারতে স্বর্ণের দামের নতুন রেকর্ড

আপডেট সময় ০৫:২৫:২৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মার্চ ২০২৩

বিশ্বের অন্যতম বড় বাজার ভারতে নতুন রেকর্ড ছুঁয়েছে সোনার দাম। গতকাল শুক্রবার (১৭ মার্চ) এক তোলা (১০ গ্রাম) সোনার দাম ৫৯ হাজার ৪৬১ রুপি পর্যন্ত পৌঁছায়। তবে দিনের শেষ দিকে সোনার লেনদেন হয় ৫৯ হাজার ৪২০ রূপিতে।

বৃহস্পতিবারের তুলনায় শুক্রবার সোনার দাম ২ দশমিক ৪৪ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। অপরদিকে ৩ শতাংশ বেড়ে প্রতি কেজি রূপার দাম দাঁড়ায় ৬৮ হাজার ৬৪৯ রূপিতে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য ইকোনোমিক টাইমস এসব তথ্য জানিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপের ব্যাংকগুলোতে বর্তমানে কিছুটা অস্থিরতা চলায় সোনার দাম বাড়তেই থাকবে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যমটি। এমনকি পূর্বের সব রেকর্ড ভেঙে প্রতি ভরি সোনা ৬০ হাজার রূপি পার হয়ে যেতে পারে বলে জানিয়েছেন অনুজ গুপ্ত নামের একজন অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞ ।

ভারতে এ বছরের শুরু থেকে গতকাল শুক্রবার পর্যন্ত সোনার দাম বেড়েছে ৪ হাজার ৩৬৬ রূপি। যা মোট দামের প্রায় ৮ শতাংশ। এরমধ্যে শুধুমাত্র মার্চেই বেড়েছে ৩ হাজার ৬২৮ রূপি বা ৬ দশমিক ৫১ শতাংশ।

স্বস্তিকা ইনভেস্ট লিমিটেডের অর্থনীতি বিষয়ক বিশেষজ্ঞ নীপেন্দ্র যাদব বলেছেন, ‘এ সপ্তাহে সোনার বাজারে অস্থিরতা দেখা দিতে পারে।’ তিনি জানিয়েছেন, ইতিমধ্যে দাম ৫৯ হাজার রূপি ছাড়িয়ে গেছে, যা তাদের ধারণার চেয়েও বেশি।

অপরদিকে শুক্রবার আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দাম প্রায় ২ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। বার্তাসংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, গত তিন বছরের মধ্যে সাপ্তাহিক দামে সবচেয়ে বড় উর্ধ্বগতি দেখা গেছে এদিন।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের স্পট বাজারে প্রতি আউন্স সোনার দাম ২ দশমিক ৮ শতাংশ বেড়ে ১ হাজার ৯৭১ দশমিক ৯৫ ডলার স্পর্শ করে। যা ২০২২ সালের এপ্রিলের পর সর্বোচ্চ। আর শুধুমাত্র এ সপ্তাহে দাম বেড়েছে ৫ দশমিক ৬ শতাংশ। ২০২০ সালের মার্চের পর যা সর্বোচ্চ। অপরদিকে ফিউচার বাজারে সোনার দাম ২ দশমিক ৬ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। এদিন প্রতি আউন্স সোনা লেনদেন হয় ১ হাজার ৯৭৩ দশমিক ৫০ ডলারে।

তাই ওয়াং নামের নিউইয়র্কের এক সোনা ব্যবসায়ী রয়টার্সকে জানিয়েছেন, ব্যাংকের অস্থিরতার কারণে সোনার দাম বাড়তেই থাকবে। কিন্তু যদি কেন্দ্রীয় ব্যাংক সুদের হার বাড়ানো স্থগিত করে তাহলে সোনার বাজারে স্থিতিশীলতা আসবে।

অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞ অনুজ গুপ্ত জানিয়েছেন, তার আশঙ্কা আগামী সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি আউন্স সোনার দাম ২ হাজার ডলার পার হয়ে যেতে পারে।