ঢাকা ১২:১২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঘূর্ণিঝড় ফ্রেডির আঘাত, মালাউইয়ে মৃত্যু বেড়ে ৩০০

দক্ষিণ-পূর্ব আফ্রিকার দেশ মালাউইয়ে ঘূর্ণিঝড় ফ্রেডির তাণ্ডবে এ পর্যন্ত তিনশর বেশি মানুষের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে সৃষ্ট বন্যা ও ভূমিধসের কারণে বহু মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন। দেশটির প্রেসিডেন্ট লাজারাস চাকভেরা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে ত্রাণ সহায়তার আহ্বান জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) প্রেসিডেন্ট লাজারাস বলেন, ‘আমাদের অবিলম্বে সাহায্য দরকার। মালাউইয়ের বাণিজ্যিক রাজধানী ব্লান্টায়ারের একটি আশ্রয় শিবিরের বাইরে তিনি একথা বলেন। তিনি আরও বলেন, উদ্ধারকাজের জন্য এখন হেলিকপ্টার দরকার, যাতে আমরা কিছু খাদ্যদ্রব্য পৌঁছে দিতে পারি এবং অন্যান্য সরঞ্জাম উদ্ধার করতে পারি।’

গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঘূর্ণিঝড় ফ্রেডি দ্বিতীয়বারের মতো দক্ষিণ আফ্রিকার উপকূলে আঘাত হানে। মালাউই এবং তার প্রতিবেশী মোজাম্বিকে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে এই ঝড়। মালাউইতে কমপক্ষে ৩২৬ জনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। ফলে ফেব্রুয়ারি থেকে এই অঞ্চলজুড়ে ঝড়ের কারণে মৃত্যুর সংখ্যা ৪০০-তে নিয়ে এসেছে।

প্রেসিডেন্ট চাকভেরা এত মানুষের মৃত্যুর ঘটনায় ১৪ দিনের শোক ঘোষণা করেন। দেড় মিলিয়ন ডলার ত্রাণ সহায়তা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে সহায়তার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, তার সরকারের ত্রাণ সহায়তা দেওয়ার ক্ষমতা খুব সীমিত।

তিনি আরও বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে দুর্যোগের কবলে পড়েছি আমরা।’ ১৩ মাসে ৩টি বিপর্যয়কর ঘূর্ণিঝড়ের কবলে পড়ে তার দেশ বলেও উল্লেখ করেন মালাউইয়ের প্রেসিডেন্ট।

সূত্র: আল-জাজিরা

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

ঘূর্ণিঝড় ফ্রেডির আঘাত, মালাউইয়ে মৃত্যু বেড়ে ৩০০

আপডেট সময় ১০:০০:৫৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ মার্চ ২০২৩

দক্ষিণ-পূর্ব আফ্রিকার দেশ মালাউইয়ে ঘূর্ণিঝড় ফ্রেডির তাণ্ডবে এ পর্যন্ত তিনশর বেশি মানুষের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে সৃষ্ট বন্যা ও ভূমিধসের কারণে বহু মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন। দেশটির প্রেসিডেন্ট লাজারাস চাকভেরা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে ত্রাণ সহায়তার আহ্বান জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) প্রেসিডেন্ট লাজারাস বলেন, ‘আমাদের অবিলম্বে সাহায্য দরকার। মালাউইয়ের বাণিজ্যিক রাজধানী ব্লান্টায়ারের একটি আশ্রয় শিবিরের বাইরে তিনি একথা বলেন। তিনি আরও বলেন, উদ্ধারকাজের জন্য এখন হেলিকপ্টার দরকার, যাতে আমরা কিছু খাদ্যদ্রব্য পৌঁছে দিতে পারি এবং অন্যান্য সরঞ্জাম উদ্ধার করতে পারি।’

গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঘূর্ণিঝড় ফ্রেডি দ্বিতীয়বারের মতো দক্ষিণ আফ্রিকার উপকূলে আঘাত হানে। মালাউই এবং তার প্রতিবেশী মোজাম্বিকে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে এই ঝড়। মালাউইতে কমপক্ষে ৩২৬ জনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। ফলে ফেব্রুয়ারি থেকে এই অঞ্চলজুড়ে ঝড়ের কারণে মৃত্যুর সংখ্যা ৪০০-তে নিয়ে এসেছে।

প্রেসিডেন্ট চাকভেরা এত মানুষের মৃত্যুর ঘটনায় ১৪ দিনের শোক ঘোষণা করেন। দেড় মিলিয়ন ডলার ত্রাণ সহায়তা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে সহায়তার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, তার সরকারের ত্রাণ সহায়তা দেওয়ার ক্ষমতা খুব সীমিত।

তিনি আরও বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে দুর্যোগের কবলে পড়েছি আমরা।’ ১৩ মাসে ৩টি বিপর্যয়কর ঘূর্ণিঝড়ের কবলে পড়ে তার দেশ বলেও উল্লেখ করেন মালাউইয়ের প্রেসিডেন্ট।

সূত্র: আল-জাজিরা