ঢাকা ১১:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় গ্রাম পুলিশ নিহত

নওগাঁর পত্নীতলায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে থাকা একটি পানের দোকানে ঢুকে পড়ে কাভার্ডভ্যান। সেই কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় মো. সুরত আলী (৫৫) নামে এক গ্রাম পুলিশ নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও তিনজন।

বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার আগ্রাদ্বিগুন-সাপাহার সড়কের শিহাড়া বাজার মোড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত গ্রাম পুলিশ মো. সুরত আলী আগ্রাদ্বিগুন ইউনিয়নের পরাণপুর গ্রামের মৃত বছির উদ্দিনের ছেলে। আর আহতরা হলেন- মো. আকবর আলী (৬২), মো. গোলাম মোস্তফা (৬৫) ও মো. সমির উদ্দিন (৬৬)। তারা সবাই শিহাড়া এলাকার বাসিন্দা।

পত্নীতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব বলেন, নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি কাভার্ডভ্যান সড়কের পাশে দোকানে ঢুকে পড়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। দোকানের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা সুরত আলী নামে এক গ্রাম পুলিশ ঘটনাস্থলেই মারা যান।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সাপাহার উপজেলা সদর থেকে একটি ওষুধ কোম্পানির কাভার্ডভ্যান মালামাল নিয়ে ধামইরহাট উপজেলার আগ্রাদ্বিগুন বাজারে যাচ্ছিল। বেলা সাড়ে ১২টার দিকে কাভার্ডভ্যানটি উপজেলার শিহাড়া মোড় এলাকায় বাঁক ঘোরানোর সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা গ্রাম পুলিশ সুরত আলীকে চাপা দিয়ে একটি পানের দোকানের ভেতর ঢুকে যায়।

এতে ঘটনাস্থলেই সুরত আলী মারা যান এবং চায়ের দোকানদারসহ দোকানের ভেতরে থাকা তিনজন গুরুতর আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। পরে আহত গোলাম মোস্তফা ও ছমির উদ্দিনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নেওয়া হয়।

ওসি পলাশ চন্দ্র দেব আরও বলেন, কাভার্ডভ্যানের চালক ও তার সহকারীকে থানা হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোনো অভিযোগ হয়নি।

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় গ্রাম পুলিশ নিহত

আপডেট সময় ০৫:৫৩:৫৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২৩

নওগাঁর পত্নীতলায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে থাকা একটি পানের দোকানে ঢুকে পড়ে কাভার্ডভ্যান। সেই কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় মো. সুরত আলী (৫৫) নামে এক গ্রাম পুলিশ নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও তিনজন।

বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার আগ্রাদ্বিগুন-সাপাহার সড়কের শিহাড়া বাজার মোড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত গ্রাম পুলিশ মো. সুরত আলী আগ্রাদ্বিগুন ইউনিয়নের পরাণপুর গ্রামের মৃত বছির উদ্দিনের ছেলে। আর আহতরা হলেন- মো. আকবর আলী (৬২), মো. গোলাম মোস্তফা (৬৫) ও মো. সমির উদ্দিন (৬৬)। তারা সবাই শিহাড়া এলাকার বাসিন্দা।

পত্নীতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব বলেন, নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি কাভার্ডভ্যান সড়কের পাশে দোকানে ঢুকে পড়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। দোকানের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা সুরত আলী নামে এক গ্রাম পুলিশ ঘটনাস্থলেই মারা যান।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সাপাহার উপজেলা সদর থেকে একটি ওষুধ কোম্পানির কাভার্ডভ্যান মালামাল নিয়ে ধামইরহাট উপজেলার আগ্রাদ্বিগুন বাজারে যাচ্ছিল। বেলা সাড়ে ১২টার দিকে কাভার্ডভ্যানটি উপজেলার শিহাড়া মোড় এলাকায় বাঁক ঘোরানোর সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা গ্রাম পুলিশ সুরত আলীকে চাপা দিয়ে একটি পানের দোকানের ভেতর ঢুকে যায়।

এতে ঘটনাস্থলেই সুরত আলী মারা যান এবং চায়ের দোকানদারসহ দোকানের ভেতরে থাকা তিনজন গুরুতর আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। পরে আহত গোলাম মোস্তফা ও ছমির উদ্দিনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নেওয়া হয়।

ওসি পলাশ চন্দ্র দেব আরও বলেন, কাভার্ডভ্যানের চালক ও তার সহকারীকে থানা হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোনো অভিযোগ হয়নি।