ঢাকা ১১:৩১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ আসনে উপ-নির্বাচন ১ ফেব্রুয়ারি

বিএনপির সংসদ সদস্য (এমপি) হারুনুর রশীদের পদত্যাগ করা চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনেও আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ভোটগ্রহণ করবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সোমবার ইসি সচিব মো. জাহাঙ্গীর আলম স্বাক্ষরিত চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ শূন্য আসনের তফসিল সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

তফসিল অনুযায়ী, এই আসনের উপ-নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ৫ জানুয়ারি, বাছাই ৮ জানুয়ারি, প্রত্যাহার ১৫ জানুয়ারি এবং ভোটগ্রহণ ১ ফেব্রুয়ারি।
এর আগে গত ২২ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদের স্পিকারের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন হারুন। সেদিনই আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়।

তার আগে ১৮ ডিসেম্বর সংরক্ষিত নারী আসন ছাড়া শূন্য হওয়া বাকি পাঁচ (ঠাকুরগাঁও-৩, বগুড়া-৪, বগুড়া-৬, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২) আসনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এসব আসনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ হবে।

উল্লেখ্য, গত ১০ ডিসেম্বর রাজধানীর গোলপবাগ মাঠে আয়োজিত সমাবেশ থেকে বিএনপির সাত এমপির পদত্যাগ করার ঘোষণা দেওয়া হয়। এর পরদিন ১১ ডিসেম্বর সশরীরে পদত্যাগপত্র নিয়ে স্পিকারের সঙ্গে দেখা করেন পাঁচজন এমপি। শারীরিক অসুস্থতা ও বিদেশে অবস্থান করায় বাকি দুইজন যেতে পারেননি। পরে সেখান থেকে ছয়জনের আবেদন গ্রহণ করে সংসদ সচিবালয়। সেদিনই ছয়টি আসন শূন্য ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশ করা হয়।

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

চাঁপাইনবাবগঞ্জ আসনে উপ-নির্বাচন ১ ফেব্রুয়ারি

আপডেট সময় ০৫:৩৪:২০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০২২

বিএনপির সংসদ সদস্য (এমপি) হারুনুর রশীদের পদত্যাগ করা চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনেও আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ভোটগ্রহণ করবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সোমবার ইসি সচিব মো. জাহাঙ্গীর আলম স্বাক্ষরিত চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ শূন্য আসনের তফসিল সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

তফসিল অনুযায়ী, এই আসনের উপ-নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ৫ জানুয়ারি, বাছাই ৮ জানুয়ারি, প্রত্যাহার ১৫ জানুয়ারি এবং ভোটগ্রহণ ১ ফেব্রুয়ারি।
এর আগে গত ২২ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদের স্পিকারের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন হারুন। সেদিনই আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়।

তার আগে ১৮ ডিসেম্বর সংরক্ষিত নারী আসন ছাড়া শূন্য হওয়া বাকি পাঁচ (ঠাকুরগাঁও-৩, বগুড়া-৪, বগুড়া-৬, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২) আসনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এসব আসনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ হবে।

উল্লেখ্য, গত ১০ ডিসেম্বর রাজধানীর গোলপবাগ মাঠে আয়োজিত সমাবেশ থেকে বিএনপির সাত এমপির পদত্যাগ করার ঘোষণা দেওয়া হয়। এর পরদিন ১১ ডিসেম্বর সশরীরে পদত্যাগপত্র নিয়ে স্পিকারের সঙ্গে দেখা করেন পাঁচজন এমপি। শারীরিক অসুস্থতা ও বিদেশে অবস্থান করায় বাকি দুইজন যেতে পারেননি। পরে সেখান থেকে ছয়জনের আবেদন গ্রহণ করে সংসদ সচিবালয়। সেদিনই ছয়টি আসন শূন্য ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশ করা হয়।