ঢাকা ০৩:০৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে অ্যালকোহল পানে আরও ৪ জনের মৃত্যু

বিষাক্ত অ্যালকোহল পানে আরও চারজনের মৃত্যু

দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ  দিনাজপুরের বিরামপুর পৌর শহরে বিষাক্ত অ্যালকোহল পানে আরও চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এ ঘটনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৯ জন।

দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার (২৭ মে) বিকেলে বিরামপুর উপজেলার ইসলামপাড়ার তাপস কুমারের ছেলে অমৃত রায় (২৫), রাতে আব্দুল আজিজের ছেলে-

সোহেল রানা (৩০), আবুল হোসেনের ছেলে মনোয়ার হোসেন (৪২) ও মাহমুদপুর গ্রামের সাবেক কমিশনার আব্দুল খালেকের ছেলে আব্দুল আলিম (৩০) মারা যান।

এর আগে মঙ্গলবার (২৬ মে) রাতে নিজ বাসায় মাহমুদপুর গ্রামের আনোয়ারুল ইসলামের ছেলে আব্দুল মতিন (২৭), তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে আজিজুল ইসলাম (৩৩) ও সুলতান মাহমুদের ছেলে মহসিন আলী (৩৮),

বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার দুপুরে শফিকুল ইসলাম (৪৫) ও তার স্ত্রী মনজু আরা (৩৫) মারা যান।

বিরামপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মনির জানান, মঙ্গলবার (২৬ মে) সন্ধ্যায় কয়েকজন বন্ধু মিলে অ্যালকোহল কিনে খান।

রাতে আব্দুল মতিন, আজিজুল ইসলাম ও মহসিন আলী নিজ নিজ বাসায় মারা যান।

বুধবার দুপুরে শফিকুল ইসলাম ও তার স্ত্রী মনজু আরা, বিকেলে অমৃত রায় এবং রাতে সোহেল রানা, মনোয়ার হোসেন ও আব্দুল আলিম মারা যান।

এ ঘটনায় স্থানীয় হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক চিকিৎসক আব্দুল মান্নানকে আটক করা হয়েছে।

 

ট্যাগস

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

দিনাজপুরে অ্যালকোহল পানে আরও ৪ জনের মৃত্যু

আপডেট সময় ০৭:৪১:৫৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০

দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ  দিনাজপুরের বিরামপুর পৌর শহরে বিষাক্ত অ্যালকোহল পানে আরও চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এ ঘটনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৯ জন।

দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার (২৭ মে) বিকেলে বিরামপুর উপজেলার ইসলামপাড়ার তাপস কুমারের ছেলে অমৃত রায় (২৫), রাতে আব্দুল আজিজের ছেলে-

সোহেল রানা (৩০), আবুল হোসেনের ছেলে মনোয়ার হোসেন (৪২) ও মাহমুদপুর গ্রামের সাবেক কমিশনার আব্দুল খালেকের ছেলে আব্দুল আলিম (৩০) মারা যান।

এর আগে মঙ্গলবার (২৬ মে) রাতে নিজ বাসায় মাহমুদপুর গ্রামের আনোয়ারুল ইসলামের ছেলে আব্দুল মতিন (২৭), তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে আজিজুল ইসলাম (৩৩) ও সুলতান মাহমুদের ছেলে মহসিন আলী (৩৮),

বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার দুপুরে শফিকুল ইসলাম (৪৫) ও তার স্ত্রী মনজু আরা (৩৫) মারা যান।

বিরামপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মনির জানান, মঙ্গলবার (২৬ মে) সন্ধ্যায় কয়েকজন বন্ধু মিলে অ্যালকোহল কিনে খান।

রাতে আব্দুল মতিন, আজিজুল ইসলাম ও মহসিন আলী নিজ নিজ বাসায় মারা যান।

বুধবার দুপুরে শফিকুল ইসলাম ও তার স্ত্রী মনজু আরা, বিকেলে অমৃত রায় এবং রাতে সোহেল রানা, মনোয়ার হোসেন ও আব্দুল আলিম মারা যান।

এ ঘটনায় স্থানীয় হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক চিকিৎসক আব্দুল মান্নানকে আটক করা হয়েছে।