ঢাকা ০১:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গণস্বাস্থ্যের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করল ওষুধ প্রশাসন

ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক

স্টাফ রিপোর্টারঃ   করোনাভাইরাস সংক্রান্তকরণে উদ্ভাবিত কিট পরীক্ষা নিয়ে গণস্বাস্থ্যের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান।

তিনি জানান, ওনারা (গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র) যেটা বলছেন সেটা সঠিক নয়। ওনারা যখন যেভাবে চেয়েছেন আমরা সহযোগিতা করেছি। আমাদের দেওয়া ওনাদের চিঠিতেই তার প্রমাণ রয়েছে।

সোমবার (২৭ এপ্রিল) দুপুর ১টায় করোনা পরীক্ষার কিট নিয়ে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান ওষুধ প্রশাসনের ডিজি।

ডিজি মাহবুবুর রহমান জানান, ওনারা একটা টেস্ট ডেভেলপ (উদ্ভাবন) করেছেন। আমরা সহযোগিতা করার জন্য প্রস্তুত ছিলাম। আমরা সেটা করেছি।

ওনারা বলছেন ওনাদের কাজ শতভাগ সফল। যাই হোক সেটি আমাদের ট্রায়াল করতে হবে। বাংলাদেশ মেডিকেল রিসার্চ কাউন্সিল (বিএমআরসি) থেকে রিপোর্টের প্রেক্ষিতে আমরা পদক্ষেপ নিব। কিন্তু তারা বিষয়টিকে অসত্যভাবে উপস্থাপন করে ওষুধ প্রশাসনকে হেয় করছেন।

তিনি বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউওইচও) র‌্যাপিড কিট অনুমোদন করেনি। তারপরও আমরা এ বিষয়ে তাদের অনেকভাবে সহযোগিতা করেছি। এখন তাদের অসত্য তথ্য অতন্ত দুঃখজনক।

এর আগে গতকাল সংবাদ সম্মেলনে গণস্বাস্থ্যের উদ্ভাবিত করোনাভাইরাস সংক্রান্তকরণ কিট পরীক্ষার জন্য ওষুধ প্রশাসন নেয়নি বলে অভিযোগ করেছেন সংস্থাটির প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

ট্যাগস

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

গণস্বাস্থ্যের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করল ওষুধ প্রশাসন

আপডেট সময় ০১:৫০:৪৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ এপ্রিল ২০২০

স্টাফ রিপোর্টারঃ   করোনাভাইরাস সংক্রান্তকরণে উদ্ভাবিত কিট পরীক্ষা নিয়ে গণস্বাস্থ্যের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান।

তিনি জানান, ওনারা (গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র) যেটা বলছেন সেটা সঠিক নয়। ওনারা যখন যেভাবে চেয়েছেন আমরা সহযোগিতা করেছি। আমাদের দেওয়া ওনাদের চিঠিতেই তার প্রমাণ রয়েছে।

সোমবার (২৭ এপ্রিল) দুপুর ১টায় করোনা পরীক্ষার কিট নিয়ে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান ওষুধ প্রশাসনের ডিজি।

ডিজি মাহবুবুর রহমান জানান, ওনারা একটা টেস্ট ডেভেলপ (উদ্ভাবন) করেছেন। আমরা সহযোগিতা করার জন্য প্রস্তুত ছিলাম। আমরা সেটা করেছি।

ওনারা বলছেন ওনাদের কাজ শতভাগ সফল। যাই হোক সেটি আমাদের ট্রায়াল করতে হবে। বাংলাদেশ মেডিকেল রিসার্চ কাউন্সিল (বিএমআরসি) থেকে রিপোর্টের প্রেক্ষিতে আমরা পদক্ষেপ নিব। কিন্তু তারা বিষয়টিকে অসত্যভাবে উপস্থাপন করে ওষুধ প্রশাসনকে হেয় করছেন।

তিনি বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউওইচও) র‌্যাপিড কিট অনুমোদন করেনি। তারপরও আমরা এ বিষয়ে তাদের অনেকভাবে সহযোগিতা করেছি। এখন তাদের অসত্য তথ্য অতন্ত দুঃখজনক।

এর আগে গতকাল সংবাদ সম্মেলনে গণস্বাস্থ্যের উদ্ভাবিত করোনাভাইরাস সংক্রান্তকরণ কিট পরীক্ষার জন্য ওষুধ প্রশাসন নেয়নি বলে অভিযোগ করেছেন সংস্থাটির প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।