ঢাকা ০৬:৩৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ধামইরহাটে ঘুকসী খাল খনন সম্পন্ন, কৃষি ও সেচ ব্যবস্থায় পরিবর্তনের আশা

ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলার ঘুকসী খাল পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতি লিমিটেড এর আওতায় এলজিইডির টেকসই ক্ষুদ্রাকার পানি সম্পদ উন্নয়ন প্রকল্পের অধীনে খাল পুন:খনন কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

১৪ এপ্রিল খনন কাজ পরির্দশন কালে উপজেলা প্রকৌশলী মো.আলী হোসেন সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে খনন কাজে নিয়োজিত শ্রমিকদের কাজ পরিদর্শণ করেন। সাড়ে ৩ কিলোমিটার খাল পুনঃখননের ফলে পার্শ্ববর্তী কৃষি জমিতে সেচ ব্যবস্থায় আমল আমুল পরিবর্তন আসবে বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন।

তিনি আরও বলেন, খালটি খননের ফলে পানি ধান ক্ষমতা যেমন বৃদ্ধি পাবে, তেমনি কৃষকরা তাদের ফসলী জমিতে প্রয়োজন মত সেচের মাধ্যমে ওই এলাকার কৃষির প্রসার ঘটিয়ে, মৎস্যচাষ ও হাঁস পালনসহ অন্যান্য সুবিধা নিশ্চিতভাবে বৃদ্ধি পাবে। এতে করে সমিতির সদস্যের আর্থসামাজিক উন্নয়ন সাধিত হবে।

শ্রমিকদের সরদার অনিল, জগেন, রকেট রাশেদ, নারায়ন ও উমর আলী বলেন. আমরা প্রতিদিন ৭০-৮০ জন শ্রমিক এই দুর্যোগ সময়ে কাজটি পেয়ে এবং বেতন পেয়ে আমাদের সংসারে ব্যয়ভার বহন করা সম্ভব হয়েছে অন্যথায় আমাদের কর্মহীন অবস্থায় অন্যের দারে হাত পাততে হবো। লেবার সরদাররা আরও বলেন, উপজেলা প্রকৌশলী দপ্তরের নির্দেশনা মোতাবেক আমরা সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে কাজ সম্পন্ন করেছি।

ওই এলাকাকার কৃষক হেলাল হোসেন বলেন, সরকারের গৃহিত এই পুনঃখনন কার্যক্রমের ফলে এই খালের গভীরতা বৃদ্ধি পাওয়ায় খরা মৌসুমে ভূ-উপরিভাগের এই সঞ্চিত পানি থেকে আমরা কৃষি জমিতে সেচের মাধ্যমে ব্যাপক ভাবে ফসল ফলাতে সক্ষম হবো।

পরির্দশনকালে ঘুকসী খাল পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতি লিমিটেডের সভাপতি আব্দুল হাকিম, সম্পাদক শামীম রেজা,পৌর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আজিজার রহমান বাবু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগস

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

ধামইরহাটে ঘুকসী খাল খনন সম্পন্ন, কৃষি ও সেচ ব্যবস্থায় পরিবর্তনের আশা

আপডেট সময় ০৩:৩৪:৪৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ এপ্রিল ২০২০

ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলার ঘুকসী খাল পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতি লিমিটেড এর আওতায় এলজিইডির টেকসই ক্ষুদ্রাকার পানি সম্পদ উন্নয়ন প্রকল্পের অধীনে খাল পুন:খনন কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

১৪ এপ্রিল খনন কাজ পরির্দশন কালে উপজেলা প্রকৌশলী মো.আলী হোসেন সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে খনন কাজে নিয়োজিত শ্রমিকদের কাজ পরিদর্শণ করেন। সাড়ে ৩ কিলোমিটার খাল পুনঃখননের ফলে পার্শ্ববর্তী কৃষি জমিতে সেচ ব্যবস্থায় আমল আমুল পরিবর্তন আসবে বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন।

তিনি আরও বলেন, খালটি খননের ফলে পানি ধান ক্ষমতা যেমন বৃদ্ধি পাবে, তেমনি কৃষকরা তাদের ফসলী জমিতে প্রয়োজন মত সেচের মাধ্যমে ওই এলাকার কৃষির প্রসার ঘটিয়ে, মৎস্যচাষ ও হাঁস পালনসহ অন্যান্য সুবিধা নিশ্চিতভাবে বৃদ্ধি পাবে। এতে করে সমিতির সদস্যের আর্থসামাজিক উন্নয়ন সাধিত হবে।

শ্রমিকদের সরদার অনিল, জগেন, রকেট রাশেদ, নারায়ন ও উমর আলী বলেন. আমরা প্রতিদিন ৭০-৮০ জন শ্রমিক এই দুর্যোগ সময়ে কাজটি পেয়ে এবং বেতন পেয়ে আমাদের সংসারে ব্যয়ভার বহন করা সম্ভব হয়েছে অন্যথায় আমাদের কর্মহীন অবস্থায় অন্যের দারে হাত পাততে হবো। লেবার সরদাররা আরও বলেন, উপজেলা প্রকৌশলী দপ্তরের নির্দেশনা মোতাবেক আমরা সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে কাজ সম্পন্ন করেছি।

ওই এলাকাকার কৃষক হেলাল হোসেন বলেন, সরকারের গৃহিত এই পুনঃখনন কার্যক্রমের ফলে এই খালের গভীরতা বৃদ্ধি পাওয়ায় খরা মৌসুমে ভূ-উপরিভাগের এই সঞ্চিত পানি থেকে আমরা কৃষি জমিতে সেচের মাধ্যমে ব্যাপক ভাবে ফসল ফলাতে সক্ষম হবো।

পরির্দশনকালে ঘুকসী খাল পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতি লিমিটেডের সভাপতি আব্দুল হাকিম, সম্পাদক শামীম রেজা,পৌর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আজিজার রহমান বাবু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।