ঢাকা ১১:৫৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গোপালগঞ্জে পৃথক তিনটি সড়ক দুর্ঘটনায় ২ জন নিহত

ছবি : সংগৃহীত

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  গোপালগঞ্জে পৃথক তিনটি সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেলের দুই আরোহী নিহত হয়েছেন। এসব দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ২৬ জন।

মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) রাতে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার বিজয়পাশা, চন্দ্রদিঘলীয়া ও কাশিয়ানী উপজেলার ভাটিয়াপাড়ায় এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতের মধ্যে এক জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তিনি হলেন
গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া উপজেলার হাবিবুর রহমান। গুরুতর আহতদের গোপালগঞ্জ ২৫০-শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ভাঙ্গা হাইওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আতাউর রহমান জানান, মঙ্গলবার গভীর রাতে মোটরসাইকেলে করে গোপালগঞ্জ শহরে ফিরছিলেন হবিবুর রহমান। পথে বিজয়পাশা এলাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাক তাকে বহনকারী মোটরসাইকেলটিকে চাপায় দেয়। এতে ঘটনাস্থলে হাবিবুরের মৃত্যু হয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

অপরদিকে একটি মোটরসাইকেলে করে ঢাকা থেকে সাতক্ষীরা যাচ্ছিলেন দুই যুবক। রাত সা‌ড়ে ১০টার দি‌কে মোটরসাইকেলটি গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার চন্দ্রদিঘলীয়া এলাকায় পৌঁছালে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মহাসড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা একটি লরির পেছনে ধাক্কা খায়। এতে ঘটনাস্থলে মোটরসাইকেল আরোহী অজ্ঞাতপরিচয় (৩০) যুবকের মৃত্যু ও অপর এক যুবক (২৮) গুরুতর আহত হন।

পরে খবর পেয়ে গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে হতাহতদের উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে আসে।

অন্যদিকে, একই মহাসড়কের কাশিয়ানী উপজেলার ভাটিয়াপাড়ায় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা গোপালগঞ্জগামী সুবর্ণ পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস বিপরীত দিক থেকে আসা রাজধানী পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাসকে সাইড দি‌তে যায়।

এ সময় সুবর্ণ পরিবহনের চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে বাসটি মহাসড়কের পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে বাসের অন্তত ২৫ যাত্রী আহত হন। পরে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে আসে। গুরুতর আহত ২০ জনকে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ট্যাগস

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

গোপালগঞ্জে পৃথক তিনটি সড়ক দুর্ঘটনায় ২ জন নিহত

আপডেট সময় ০১:০৭:২০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৫ মার্চ ২০২০

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  গোপালগঞ্জে পৃথক তিনটি সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেলের দুই আরোহী নিহত হয়েছেন। এসব দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ২৬ জন।

মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) রাতে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার বিজয়পাশা, চন্দ্রদিঘলীয়া ও কাশিয়ানী উপজেলার ভাটিয়াপাড়ায় এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতের মধ্যে এক জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তিনি হলেন
গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া উপজেলার হাবিবুর রহমান। গুরুতর আহতদের গোপালগঞ্জ ২৫০-শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ভাঙ্গা হাইওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আতাউর রহমান জানান, মঙ্গলবার গভীর রাতে মোটরসাইকেলে করে গোপালগঞ্জ শহরে ফিরছিলেন হবিবুর রহমান। পথে বিজয়পাশা এলাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাক তাকে বহনকারী মোটরসাইকেলটিকে চাপায় দেয়। এতে ঘটনাস্থলে হাবিবুরের মৃত্যু হয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

অপরদিকে একটি মোটরসাইকেলে করে ঢাকা থেকে সাতক্ষীরা যাচ্ছিলেন দুই যুবক। রাত সা‌ড়ে ১০টার দি‌কে মোটরসাইকেলটি গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার চন্দ্রদিঘলীয়া এলাকায় পৌঁছালে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মহাসড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা একটি লরির পেছনে ধাক্কা খায়। এতে ঘটনাস্থলে মোটরসাইকেল আরোহী অজ্ঞাতপরিচয় (৩০) যুবকের মৃত্যু ও অপর এক যুবক (২৮) গুরুতর আহত হন।

পরে খবর পেয়ে গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে হতাহতদের উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে আসে।

অন্যদিকে, একই মহাসড়কের কাশিয়ানী উপজেলার ভাটিয়াপাড়ায় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা গোপালগঞ্জগামী সুবর্ণ পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস বিপরীত দিক থেকে আসা রাজধানী পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাসকে সাইড দি‌তে যায়।

এ সময় সুবর্ণ পরিবহনের চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে বাসটি মহাসড়কের পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে বাসের অন্তত ২৫ যাত্রী আহত হন। পরে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে আসে। গুরুতর আহত ২০ জনকে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।