ঢাকা ১১:৩৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফেসবুক-ইনস্টাগ্রাম বিনামূল্যে ব্যবহারের দিন কি ফুরাচ্ছে?

এবার টাকার বিনিময়ে আইডি ভেরিফাই করা যাবে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে। মিলবে ব্লু -ব্যাজ বা নীল টিকও। সাধারণভাবে সবারই ধারণা ছিল, ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম হয়তো বিনামূল্যেই ব্যবহার করা যাবে সবসময়।

কিন্তু সেই ধারণায় পানি ঢেলে দিয়ে রোববার (১৯ ফেব্রুয়ারি) থেকে পেইড ভার্সন চালু করে দিয়েছে ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামের মাতৃপ্রতিষ্ঠান মেটা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবর, ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামের বিজ্ঞাপন নির্ভর যে ব্যবসা ছিল তাতে ধস নামায় ফেসবুক এই পেইড ভার্সনে চলে এল। রোববার মেটার প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামের জন্য পেইড ভেরিফিকেশন অপশন চালুর ঘোষণা দেন।

নতুন ঘোষণা অনুসারে, এখন থেকে ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামে অ্যাকাউন্ট ভেরিফিকেশনের জন্য ১১.৯৯ ডলার অর্থাৎ ১২ ডলার লাগবে প্রতি মাসে। এ ক্ষেত্রে মার্ক জাকারবার্গ টুইটারের প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্ককেই অনুসরণ করেছেন।

ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করা এক বিবৃতিতে ভেরিফিকেশন ফি চালুর বিষয়ে মেটার প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ বলেছেন, ‘আমাদের সেবার সত্যতা ও নিরাপত্তা নিশ্চিতে এ ফিচারটি দারুণ ভূমিকা রাখবে।’

বাজারে আসার আগে মেটার এ নতুন ফিচার নিউজিল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়ায় পরীক্ষামূলকভাবে চলবে এক সপ্তাহ। তারপর যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে চালু হবে ফিচারটি।

এ ব্লু ব্যাজ বা নীল টিক নির্দেশ করবে যে কোনো নির্দিষ্ট ব্যক্তির অ্যাকাউন্ট সরকারি আইডি বা নথিপত্র দিয়ে যাচাই করা হয়েছে। এ সেবা একই নাম ও ছবি ব্যবহার করে একাধিক ভুয়া আইডির বিরুদ্ধে অতিরিক্ত সুরক্ষা দেবে বলে জানিয়েছে মেটা।

প্রাথমিকভাবে ফিচারটি কন্টেন্ট ক্রিয়েটরদের জন্য উন্মুক্ত করা হবে। যাতে তারা নিজের আইডি ক্লোন হওয়া থেকে বাঁচাতে পারেন এবং নিজেদের উপস্থিতি আরও শক্তভাবে জানান দিতে পারেন। তবে যেসব অ্যাকাউন্ট আগে থেকেই ভেরিফায়েড তাদের ক্ষেত্রে কোনো পরিবর্তন আসবে না।

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

ফেসবুক-ইনস্টাগ্রাম বিনামূল্যে ব্যবহারের দিন কি ফুরাচ্ছে?

আপডেট সময় ১১:০৭:৫৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

এবার টাকার বিনিময়ে আইডি ভেরিফাই করা যাবে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে। মিলবে ব্লু -ব্যাজ বা নীল টিকও। সাধারণভাবে সবারই ধারণা ছিল, ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম হয়তো বিনামূল্যেই ব্যবহার করা যাবে সবসময়।

কিন্তু সেই ধারণায় পানি ঢেলে দিয়ে রোববার (১৯ ফেব্রুয়ারি) থেকে পেইড ভার্সন চালু করে দিয়েছে ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামের মাতৃপ্রতিষ্ঠান মেটা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবর, ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামের বিজ্ঞাপন নির্ভর যে ব্যবসা ছিল তাতে ধস নামায় ফেসবুক এই পেইড ভার্সনে চলে এল। রোববার মেটার প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামের জন্য পেইড ভেরিফিকেশন অপশন চালুর ঘোষণা দেন।

নতুন ঘোষণা অনুসারে, এখন থেকে ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামে অ্যাকাউন্ট ভেরিফিকেশনের জন্য ১১.৯৯ ডলার অর্থাৎ ১২ ডলার লাগবে প্রতি মাসে। এ ক্ষেত্রে মার্ক জাকারবার্গ টুইটারের প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্ককেই অনুসরণ করেছেন।

ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করা এক বিবৃতিতে ভেরিফিকেশন ফি চালুর বিষয়ে মেটার প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ বলেছেন, ‘আমাদের সেবার সত্যতা ও নিরাপত্তা নিশ্চিতে এ ফিচারটি দারুণ ভূমিকা রাখবে।’

বাজারে আসার আগে মেটার এ নতুন ফিচার নিউজিল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়ায় পরীক্ষামূলকভাবে চলবে এক সপ্তাহ। তারপর যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে চালু হবে ফিচারটি।

এ ব্লু ব্যাজ বা নীল টিক নির্দেশ করবে যে কোনো নির্দিষ্ট ব্যক্তির অ্যাকাউন্ট সরকারি আইডি বা নথিপত্র দিয়ে যাচাই করা হয়েছে। এ সেবা একই নাম ও ছবি ব্যবহার করে একাধিক ভুয়া আইডির বিরুদ্ধে অতিরিক্ত সুরক্ষা দেবে বলে জানিয়েছে মেটা।

প্রাথমিকভাবে ফিচারটি কন্টেন্ট ক্রিয়েটরদের জন্য উন্মুক্ত করা হবে। যাতে তারা নিজের আইডি ক্লোন হওয়া থেকে বাঁচাতে পারেন এবং নিজেদের উপস্থিতি আরও শক্তভাবে জানান দিতে পারেন। তবে যেসব অ্যাকাউন্ট আগে থেকেই ভেরিফায়েড তাদের ক্ষেত্রে কোনো পরিবর্তন আসবে না।