ঢাকা ০৪:৪৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইসরাইলি সেনার গুলিতে ৯ ফিলিস্তিনি নিহত

অধিকৃত পশ্চিম তীরের জেনিনে ইসরাইলি সেনাবাহিনীর গুলিতে এক বৃদ্ধা নারীসহ অন্তত নয়জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অনেকে।

বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত এক মাস ধরে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে পশ্চিম তীরে। প্রায় প্রতিদিনই কোথাও না কোথাও অভিযান চলছে ইসরাইলের। ইসরাইলি বাহিনীর হাতে প্রাণ হারাচ্ছেন নিরীহ ফিলিস্তিনিরা।

ফিলিস্তিনি কর্মকর্তারা জানিয়েছে, চলতি বছরের শুরুতে ইসরাইলি অভিযান শুরুর পর বৃহস্পতিবার অধিকৃত পশ্চিম তীরে একদিনে সবচেয়ে বেশি নিহতের ঘটনা ঘটেছে।

ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছেন, দখলদার ইসরাইলি বাহিনী জেনিনে শরণার্থী শিবিরে হামলা চালিয়েছে। হামলায় নয়জন নিহত ও ১৬ জন আহত হয়েছেন। ফিলিস্তিন এই হামলাকে ‘গণহত্যা’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

ইসরাইলি বাহিনী এখন জেনিন থেকে সরে গেছে বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। নিহতদের মধ্যে এখন পর্যন্ত একজনের পরিচয় শনাক্ত করা গেছে। তার নাম সায়েব ইসসাম জেরেকি (২৪)।

স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলেছেন, জেনিনের পরিস্থিতি খুবই উত্তপ্ত। হাসপাতালেও হামলা করেছে ইসরাইলি সেনারা। তারা অ্যাম্বুলেন্স এবং চিকিৎসকদের কাজে বাধা দিচ্ছে।

এর আগে বুধবার (২৫ জানুয়ারি) জেনিন শহরের শরণার্থী শিবিরের কাছে একটি নিরাপত্তা চৌকিতে ইসরাইলি বাহিনীর গুলিতে এক ফিলিস্তিনি যুবক নিহত হয়েছেন। ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, ওই যুবককে লক্ষ্য করে গুলি চালালে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

নেতানিয়াহু সরকার পুনরায় ক্ষমতায় আসার পর থেকেই উত্তেজনা বেড়েছে ইসরাইল-ফিলিস্তিনের মধ্যে। বৃহস্পতিবার নয়জন নিহত হওয়ার মাধ্যমে এ বছর ইসরাইলি বাহিনীর গুলিতে ফিলিস্তিনিদের মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২৮ জনে।

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

ইসরাইলি সেনার গুলিতে ৯ ফিলিস্তিনি নিহত

আপডেট সময় ০৬:০৯:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২৩

অধিকৃত পশ্চিম তীরের জেনিনে ইসরাইলি সেনাবাহিনীর গুলিতে এক বৃদ্ধা নারীসহ অন্তত নয়জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অনেকে।

বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত এক মাস ধরে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে পশ্চিম তীরে। প্রায় প্রতিদিনই কোথাও না কোথাও অভিযান চলছে ইসরাইলের। ইসরাইলি বাহিনীর হাতে প্রাণ হারাচ্ছেন নিরীহ ফিলিস্তিনিরা।

ফিলিস্তিনি কর্মকর্তারা জানিয়েছে, চলতি বছরের শুরুতে ইসরাইলি অভিযান শুরুর পর বৃহস্পতিবার অধিকৃত পশ্চিম তীরে একদিনে সবচেয়ে বেশি নিহতের ঘটনা ঘটেছে।

ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছেন, দখলদার ইসরাইলি বাহিনী জেনিনে শরণার্থী শিবিরে হামলা চালিয়েছে। হামলায় নয়জন নিহত ও ১৬ জন আহত হয়েছেন। ফিলিস্তিন এই হামলাকে ‘গণহত্যা’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

ইসরাইলি বাহিনী এখন জেনিন থেকে সরে গেছে বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। নিহতদের মধ্যে এখন পর্যন্ত একজনের পরিচয় শনাক্ত করা গেছে। তার নাম সায়েব ইসসাম জেরেকি (২৪)।

স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলেছেন, জেনিনের পরিস্থিতি খুবই উত্তপ্ত। হাসপাতালেও হামলা করেছে ইসরাইলি সেনারা। তারা অ্যাম্বুলেন্স এবং চিকিৎসকদের কাজে বাধা দিচ্ছে।

এর আগে বুধবার (২৫ জানুয়ারি) জেনিন শহরের শরণার্থী শিবিরের কাছে একটি নিরাপত্তা চৌকিতে ইসরাইলি বাহিনীর গুলিতে এক ফিলিস্তিনি যুবক নিহত হয়েছেন। ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, ওই যুবককে লক্ষ্য করে গুলি চালালে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

নেতানিয়াহু সরকার পুনরায় ক্ষমতায় আসার পর থেকেই উত্তেজনা বেড়েছে ইসরাইল-ফিলিস্তিনের মধ্যে। বৃহস্পতিবার নয়জন নিহত হওয়ার মাধ্যমে এ বছর ইসরাইলি বাহিনীর গুলিতে ফিলিস্তিনিদের মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২৮ জনে।