ঢাকা ০৩:৩২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যশোরে কৃষক খুন

নিহত কৃষকের মরদেহ

যশোর প্রতিনিধিঃ  যশোরের মণিরামপুরে নজরুল ইসলাম মোড়ল (৪৫) নামে এক কৃষক খুন হয়েছেন। শনিবার (৩০ মে) বিকেল থেকে রাতের কোন এক সময় উপজেলার হরিহরনগরের তাজপুর এলাকার একটি মাঠে এই ঘটনা ঘটে।

নিহতের মাথার সামনে ও পিছনে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। খবর পেয়ে রোববার (৩১ মে) দুপুরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করেছে। নজরুল ইসলাম তাজপুর উত্তরপাড়ার মৃত মেসের মোড়লের ছেলে।

এই ঘটনায় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ স্থানীয় আব্দুর জব্বার, মেহেদী হাসান ও আসাদুল নামে তিন জনকে হেফাজতে নিয়েছে। তবে এই ঘটনায় পুলিশের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

নিহতের ছোট ছেলে জাহিদ বলেন, প্রায় আব্বা বাড়ি থেকে বের হয়ে রাতে আর ফেরেন না। মসজিদে শুয়ে থাকেন। শনিবার বিকেলে তিনি বাড়ি থেকে বের হন। রাতে আর ফেরেননি।

সকালে আব্বা না ফেরায় আমি খুঁজতে বের হই। খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে মাঠে মতিয়ার রহমানের ক্ষেতে আব্বার রক্তাক্ত মরদেহ পড়ে থাকতে দেখি।

নজরুলের স্ত্রী পারুল বেগমের দাবি, তার স্বামী বর্গা চাষি। বাড়ির পাশে মাঠে জমি বর্গা নিয়ে তিনি মরিচ চাষ করেছেন।

গত বছর ধরে জমির উপর দিয়ে পানি নেওয়া নিয়ে আব্দুস জব্বার, আসাদুল ও মেহেদীর সাথে তার (নজরুলের) দ্বন্দ্ব।

তারা জোর করে নজরুলের জমির উপর দিয়ে পানি নিতে চায়। শনিবারও (৩০ মে) এই নিয়ে নজরুলের সাথে তাদের দ্বন্দ্ব হয়। তারই জের ধরে নজরুল খুন হয়েছে।

ঝাঁপা ক্যাম্প পুলিশের এসআই শাহাবুল আলম জানান, পানি দেওয়া দন্দে নজরুল খুন হয়েছেন। তবে, খুনের ঘটনায় কারা জড়িত তা উপস্থিত জানা যায়নি। লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম বিশেষ শাখা (ডিএসবি) কৃষক খুনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল গেছেন এবং খোঁজ খবর নিচ্ছেন।

ট্যাগস

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

যশোরে কৃষক খুন

আপডেট সময় ০৪:৪৪:১১ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩১ মে ২০২০

যশোর প্রতিনিধিঃ  যশোরের মণিরামপুরে নজরুল ইসলাম মোড়ল (৪৫) নামে এক কৃষক খুন হয়েছেন। শনিবার (৩০ মে) বিকেল থেকে রাতের কোন এক সময় উপজেলার হরিহরনগরের তাজপুর এলাকার একটি মাঠে এই ঘটনা ঘটে।

নিহতের মাথার সামনে ও পিছনে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। খবর পেয়ে রোববার (৩১ মে) দুপুরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করেছে। নজরুল ইসলাম তাজপুর উত্তরপাড়ার মৃত মেসের মোড়লের ছেলে।

এই ঘটনায় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ স্থানীয় আব্দুর জব্বার, মেহেদী হাসান ও আসাদুল নামে তিন জনকে হেফাজতে নিয়েছে। তবে এই ঘটনায় পুলিশের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

নিহতের ছোট ছেলে জাহিদ বলেন, প্রায় আব্বা বাড়ি থেকে বের হয়ে রাতে আর ফেরেন না। মসজিদে শুয়ে থাকেন। শনিবার বিকেলে তিনি বাড়ি থেকে বের হন। রাতে আর ফেরেননি।

সকালে আব্বা না ফেরায় আমি খুঁজতে বের হই। খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে মাঠে মতিয়ার রহমানের ক্ষেতে আব্বার রক্তাক্ত মরদেহ পড়ে থাকতে দেখি।

নজরুলের স্ত্রী পারুল বেগমের দাবি, তার স্বামী বর্গা চাষি। বাড়ির পাশে মাঠে জমি বর্গা নিয়ে তিনি মরিচ চাষ করেছেন।

গত বছর ধরে জমির উপর দিয়ে পানি নেওয়া নিয়ে আব্দুস জব্বার, আসাদুল ও মেহেদীর সাথে তার (নজরুলের) দ্বন্দ্ব।

তারা জোর করে নজরুলের জমির উপর দিয়ে পানি নিতে চায়। শনিবারও (৩০ মে) এই নিয়ে নজরুলের সাথে তাদের দ্বন্দ্ব হয়। তারই জের ধরে নজরুল খুন হয়েছে।

ঝাঁপা ক্যাম্প পুলিশের এসআই শাহাবুল আলম জানান, পানি দেওয়া দন্দে নজরুল খুন হয়েছেন। তবে, খুনের ঘটনায় কারা জড়িত তা উপস্থিত জানা যায়নি। লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম বিশেষ শাখা (ডিএসবি) কৃষক খুনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল গেছেন এবং খোঁজ খবর নিচ্ছেন।