ঢাকা ১১:২৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ছুরিকাঘাতে গৃহবধূকে হত্যা, আসামি কী তাহলে স্বামী?

প্রতীকী ছবি

জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ  জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে রোজিনা খাতুন (১৮) নামে এ গৃহবধূর ছুরিকাঘাত করা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পারিবারিক কলহের জেরে স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন হত্যা করতে পারে বলে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তে নিহত রোজিনার পেটে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

আজ (শনিবার) ভোরে আক্কেলপুর উপজেলার গুডুম্বা পূর্বপাড়া গ্রামে মরদেহ পাওয়া যায়। ঘটনার পর থেকে রোজিনার স্বামী মেহেদী হাসান পলাতক রয়েছেন।

নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জয়পুরহাট আধুনিক হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

রোজিনার পরিবার জানায়, শুক্রবার মধ্যরাতে একটি গাড়ির শব্দ পায় তারা এরপর থেকে রোজিনা নিখোঁজ ছিল পরে ভোরে বাড়ির পাশে মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়।

আক্কেলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু ওবায়েদ বলেন, রোজিনা মেহেদী হাসানের দ্বিতীয় স্ত্রী। মেহেদীর প্রথম স্ত্রীসহ সন্তান আছে।

প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে পারিবারিক দ্বন্দ্বের জেরে তাকে পরিকল্পিতভাবে অন্য কোথাও হত্যা করে তার বাবার বাড়ির পাশে ফেলে চলে গেছে। রোজিনার পেটে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে খুব দ্রুতই এই হত্যাকাণ্ডের মুখোশ উন্মোচন করা হবে।

 

ট্যাগস

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

ছুরিকাঘাতে গৃহবধূকে হত্যা, আসামি কী তাহলে স্বামী?

আপডেট সময় ০৬:৪১:৪৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুন ২০২০

জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ  জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে রোজিনা খাতুন (১৮) নামে এ গৃহবধূর ছুরিকাঘাত করা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পারিবারিক কলহের জেরে স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন হত্যা করতে পারে বলে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তে নিহত রোজিনার পেটে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

আজ (শনিবার) ভোরে আক্কেলপুর উপজেলার গুডুম্বা পূর্বপাড়া গ্রামে মরদেহ পাওয়া যায়। ঘটনার পর থেকে রোজিনার স্বামী মেহেদী হাসান পলাতক রয়েছেন।

নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জয়পুরহাট আধুনিক হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

রোজিনার পরিবার জানায়, শুক্রবার মধ্যরাতে একটি গাড়ির শব্দ পায় তারা এরপর থেকে রোজিনা নিখোঁজ ছিল পরে ভোরে বাড়ির পাশে মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়।

আক্কেলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু ওবায়েদ বলেন, রোজিনা মেহেদী হাসানের দ্বিতীয় স্ত্রী। মেহেদীর প্রথম স্ত্রীসহ সন্তান আছে।

প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে পারিবারিক দ্বন্দ্বের জেরে তাকে পরিকল্পিতভাবে অন্য কোথাও হত্যা করে তার বাবার বাড়ির পাশে ফেলে চলে গেছে। রোজিনার পেটে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে খুব দ্রুতই এই হত্যাকাণ্ডের মুখোশ উন্মোচন করা হবে।