ঢাকা ০৩:২২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্বাস্থ্য সচিবসহ চারজনকে আইনি নোটিশ

সুপ্রিম কোর্ট (ছবি : সংগৃহীত)

আইন-আদালত ডেস্কঃ আদালতের নির্দেশনা অনুসারে করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে নিরাপত্তা সরঞ্জামাদি তৈরি এবং হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স ও সংশ্লিষ্টদের কাছে তা পৌঁছে না দেওয়ায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ চার জনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ এনে একটি আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব আসাদুল ইসলাম ছাড়াও অতিরিক্ত সচিব (হাসপাতাল) সিরাজুল ইসলাম, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদ ও সিএমএসডি’র পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শহিদুল্লাহর ই-মেইলে এ নোটিশ পাঠানো হয়।

রবিবার (০৩ মে) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ এ নোটিশ পাঠান।

নোটিশে বলা হয়, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কর্তৃক করোনাকে মহামারি ঘোষণর পরও করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা সরঞ্জাম না থাকার বিষয়ে গত ২০ মার্চ বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। ওই সংবাদের পরিপ্রেক্ষিতে হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ জনস্বার্থে হাইকোর্টে একটি রিট পিটিশন দায়ের করে। রিটের শুনানি নিয়ে বিচারপতি মো. আশরাফুল কামাল ও বিচারপতি সরদার মো. রাশেদ জাহাঙ্গীরের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুল জারি করেন এবং অন্তর্বর্তী কিছু আদেশ দেন।

হাইকোর্ট তার আদেশে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিবকে দ্রুত পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করার নির্দেশ দেন। পাশাপাশি ওই কমিটিকে সাত দিনের মধ্যে প্রয়োজনীয় পিপিই, গ্লাভস, স্যানিটাইজার, সার্জিক্যাল মাস্ক, গাউন, সু-কভার, স্বাস্থ্য সুরক্ষা যন্ত্রপাতি ও মেডিসিনের তালিকা তৈরির নির্দেশ দেন। একইসঙ্গে ওই নিরাপত্তা সামগ্রী সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কাছে পৌঁছানোর নির্দেশ দেন।

অথচ আদালতের নির্দেশ যথাযথভাবে পালিত না হওয়ায় প্রায় ৩০০-এর বেশি চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর দায় তারা এড়াতে পারেন না। এখনও অনেক হাসপাতালে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা সামগ্রী পৌঁছায়নি বলেও সংবাদ প্রকাশ হচ্ছে। তাই আগামী তিন দিনের মধ্যে আদালতের আদেশ বাস্তবায়ন করা না হলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে।

ট্যাগস

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

স্বাস্থ্য সচিবসহ চারজনকে আইনি নোটিশ

আপডেট সময় ১২:১৯:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ মে ২০২০

আইন-আদালত ডেস্কঃ আদালতের নির্দেশনা অনুসারে করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে নিরাপত্তা সরঞ্জামাদি তৈরি এবং হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স ও সংশ্লিষ্টদের কাছে তা পৌঁছে না দেওয়ায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ চার জনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ এনে একটি আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব আসাদুল ইসলাম ছাড়াও অতিরিক্ত সচিব (হাসপাতাল) সিরাজুল ইসলাম, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদ ও সিএমএসডি’র পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শহিদুল্লাহর ই-মেইলে এ নোটিশ পাঠানো হয়।

রবিবার (০৩ মে) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ এ নোটিশ পাঠান।

নোটিশে বলা হয়, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কর্তৃক করোনাকে মহামারি ঘোষণর পরও করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা সরঞ্জাম না থাকার বিষয়ে গত ২০ মার্চ বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। ওই সংবাদের পরিপ্রেক্ষিতে হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ জনস্বার্থে হাইকোর্টে একটি রিট পিটিশন দায়ের করে। রিটের শুনানি নিয়ে বিচারপতি মো. আশরাফুল কামাল ও বিচারপতি সরদার মো. রাশেদ জাহাঙ্গীরের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুল জারি করেন এবং অন্তর্বর্তী কিছু আদেশ দেন।

হাইকোর্ট তার আদেশে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিবকে দ্রুত পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করার নির্দেশ দেন। পাশাপাশি ওই কমিটিকে সাত দিনের মধ্যে প্রয়োজনীয় পিপিই, গ্লাভস, স্যানিটাইজার, সার্জিক্যাল মাস্ক, গাউন, সু-কভার, স্বাস্থ্য সুরক্ষা যন্ত্রপাতি ও মেডিসিনের তালিকা তৈরির নির্দেশ দেন। একইসঙ্গে ওই নিরাপত্তা সামগ্রী সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কাছে পৌঁছানোর নির্দেশ দেন।

অথচ আদালতের নির্দেশ যথাযথভাবে পালিত না হওয়ায় প্রায় ৩০০-এর বেশি চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর দায় তারা এড়াতে পারেন না। এখনও অনেক হাসপাতালে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা সামগ্রী পৌঁছায়নি বলেও সংবাদ প্রকাশ হচ্ছে। তাই আগামী তিন দিনের মধ্যে আদালতের আদেশ বাস্তবায়ন করা না হলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে।