ঢাকা ১০:১১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কঠোর লকডাউনের সুফল পাচ্ছে স্পেন, কমছে দৈনিক মৃত্যুহার

কঠোর লকডাউনের সুফল পাচ্ছে স্পেন, কমছে দৈনিক মৃত্যুহার। ছবি- সংগৃহীত

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ  কঠোর লকডাউনের সুফল পেতে শুরু করেছে ইউরোপের দেশ স্পেন। দেশটিতে ক্রমান্বয়ে কমছে দৈনিক মৃত্যুহার। শেষ ২৪ ঘণ্টায় এখানে করোনায় আক্রান্ত ৫১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ১৮ দিনের মধ্যে এটি সর্বনিম্ন। এর আগের দিন দেশটিতে করোনায় মৃত্যু হয়েছিল ৬০৫ জনের।

শনিবার (১১ এপ্রিল) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত স্পেনে করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা ১৬ হাজার ৩৫৩। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৪ হাজার ৮৩০ জনের।  সব মিলিয়ে এখানে এখন পর্যন্ত মোট ১ লাখ ৬১ হাজার ৩৫৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

করোনায় এখন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী ১ লাখ ২ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ১৭ লাখেরও বেশি। এর মধ্যে ৩ লাখ ৭৬ মানুষ সেরে উঠেছেন।

তবে মৃত্যুহার কমতে থাকলেও এখনও স্পেন বা কোনো দেশই নিরাপদ নয়। করোনা নিয়ন্ত্রণে ঢিলেমি করলে যে কোনো সময় আবার এর বিস্ফোরণ ঘটতে পারে বলে সতর্ক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

 

ট্যাগস

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

কঠোর লকডাউনের সুফল পাচ্ছে স্পেন, কমছে দৈনিক মৃত্যুহার

আপডেট সময় ০৪:৪৯:১৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ এপ্রিল ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ  কঠোর লকডাউনের সুফল পেতে শুরু করেছে ইউরোপের দেশ স্পেন। দেশটিতে ক্রমান্বয়ে কমছে দৈনিক মৃত্যুহার। শেষ ২৪ ঘণ্টায় এখানে করোনায় আক্রান্ত ৫১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ১৮ দিনের মধ্যে এটি সর্বনিম্ন। এর আগের দিন দেশটিতে করোনায় মৃত্যু হয়েছিল ৬০৫ জনের।

শনিবার (১১ এপ্রিল) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত স্পেনে করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা ১৬ হাজার ৩৫৩। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৪ হাজার ৮৩০ জনের।  সব মিলিয়ে এখানে এখন পর্যন্ত মোট ১ লাখ ৬১ হাজার ৩৫৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

করোনায় এখন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী ১ লাখ ২ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ১৭ লাখেরও বেশি। এর মধ্যে ৩ লাখ ৭৬ মানুষ সেরে উঠেছেন।

তবে মৃত্যুহার কমতে থাকলেও এখনও স্পেন বা কোনো দেশই নিরাপদ নয়। করোনা নিয়ন্ত্রণে ঢিলেমি করলে যে কোনো সময় আবার এর বিস্ফোরণ ঘটতে পারে বলে সতর্ক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা