ঢাকা ১০:৪৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারতে টিকটকসহ ৫৯টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ

চীনা অ্যাপস

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ  চীনা অ্যাপ নির্মাণ প্রতিষ্ঠান বাইটড্যান্সের জনপ্রিয় অ্যাপ টিকটক, আলিবাবার তৈরি ইউসি ব্রাউজার এবং চীনের সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ নেটওয়ার্ক প্রতিষ্ঠান-

টেনসেন্ট এর জনপ্রিয় বার্তা আদান–প্রদানের অ্যাপ উইচ্যাট এবং শেয়ার ইট ছাড়াও ৫৯টি অ্যাপ এবার নিষিদ্ধ করেছে ভারত। যার অধিকাংশই চীনা মালিকানাধীন।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদন অনুযায়ী,  ভারত সরকারের পক্ষ থেকে এক বিবৃতি দিয়ে এসব অ্যাপের ওপর নিষেধাজ্ঞার কথা জানানো হয়।

সরকারি ওই বিবৃতিতে এর নেপথ্য কারণ হিসেবে নিরাপত্তা শঙ্কা ও ঝুঁকির কথা উল্লেখ করা হয়েছে। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ওই বিবৃতিতে বলা হচ্ছে,-

এই অ্যাপগুলো ‘ভারতের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতা, প্রতিরক্ষা, রাষ্ট্রীয় সুরক্ষা এবং জন শৃঙ্খলার জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।’ তাই এসব অ্যাপ দেশে নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

জুনের মাঝামাঝি বিতর্কিত লাদাখ সীমান্তে চীনা সেনাদের হামলায় ভারতের অন্তত ২০ জওয়ান নিহত পর দেশ দুটির মধ্যে উত্তেজনা শুরু হয়।

দুই দেশের মধ্যকার সংঘর্ষের পর চীনা পণ্য বর্জনের ডাক ‍ওঠে। দেশটির সরকারের পেছনে যে এমন দাবি ওঠাই মুখ্য কারণ তার বেশ স্পষ্ট।

চীনা অ্যাপ নির্মাতা বাইটড্যান্সের জনপ্রিয় অ্যাপ টিকটক। বিভিন্ন গান, বিখ্যাত সিনেমার সংলাপসহ নানা রকম মজাদার অডিওর সঙ্গে ঠোঁট মিলিয়ে-

ছোট ভিডিও তৈরি করে আপলোড করা যায় টিকটক অ্যাপে। ২০১৭ সালে অ্যাপটির যাত্রা শুরু হয়। বিশ্বজুড়ে এই অ্যাপটির জনপ্রিয়তা এখন তুঙ্গে।

এছাড়া বিশ্বের ব্রাউজার ব্যবহার তালিকায় শীর্ষে রয়েছে গুগল ক্রোম। বাজারে ক্রোমের অংশীদারিত্ব ৩৭ দশমিক ৪৬ শতাংশ।

১৭ দশমিক ৯১ শতাংশ অংশীদারিত্ব নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে অ্যাপলের সাফারি। এরপরেই আছে ইউসি (১৬ দশমিক ৯১ শতাংশ) এবং অ্যান্ড্রয়েড ব্রাউজার (১১ দশমিক ৭৫ শতাংশ)।

ট্যাগস

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

ভারতে টিকটকসহ ৫৯টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ

আপডেট সময় ০১:৫১:১০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩০ জুন ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ  চীনা অ্যাপ নির্মাণ প্রতিষ্ঠান বাইটড্যান্সের জনপ্রিয় অ্যাপ টিকটক, আলিবাবার তৈরি ইউসি ব্রাউজার এবং চীনের সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ নেটওয়ার্ক প্রতিষ্ঠান-

টেনসেন্ট এর জনপ্রিয় বার্তা আদান–প্রদানের অ্যাপ উইচ্যাট এবং শেয়ার ইট ছাড়াও ৫৯টি অ্যাপ এবার নিষিদ্ধ করেছে ভারত। যার অধিকাংশই চীনা মালিকানাধীন।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদন অনুযায়ী,  ভারত সরকারের পক্ষ থেকে এক বিবৃতি দিয়ে এসব অ্যাপের ওপর নিষেধাজ্ঞার কথা জানানো হয়।

সরকারি ওই বিবৃতিতে এর নেপথ্য কারণ হিসেবে নিরাপত্তা শঙ্কা ও ঝুঁকির কথা উল্লেখ করা হয়েছে। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ওই বিবৃতিতে বলা হচ্ছে,-

এই অ্যাপগুলো ‘ভারতের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতা, প্রতিরক্ষা, রাষ্ট্রীয় সুরক্ষা এবং জন শৃঙ্খলার জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।’ তাই এসব অ্যাপ দেশে নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

জুনের মাঝামাঝি বিতর্কিত লাদাখ সীমান্তে চীনা সেনাদের হামলায় ভারতের অন্তত ২০ জওয়ান নিহত পর দেশ দুটির মধ্যে উত্তেজনা শুরু হয়।

দুই দেশের মধ্যকার সংঘর্ষের পর চীনা পণ্য বর্জনের ডাক ‍ওঠে। দেশটির সরকারের পেছনে যে এমন দাবি ওঠাই মুখ্য কারণ তার বেশ স্পষ্ট।

চীনা অ্যাপ নির্মাতা বাইটড্যান্সের জনপ্রিয় অ্যাপ টিকটক। বিভিন্ন গান, বিখ্যাত সিনেমার সংলাপসহ নানা রকম মজাদার অডিওর সঙ্গে ঠোঁট মিলিয়ে-

ছোট ভিডিও তৈরি করে আপলোড করা যায় টিকটক অ্যাপে। ২০১৭ সালে অ্যাপটির যাত্রা শুরু হয়। বিশ্বজুড়ে এই অ্যাপটির জনপ্রিয়তা এখন তুঙ্গে।

এছাড়া বিশ্বের ব্রাউজার ব্যবহার তালিকায় শীর্ষে রয়েছে গুগল ক্রোম। বাজারে ক্রোমের অংশীদারিত্ব ৩৭ দশমিক ৪৬ শতাংশ।

১৭ দশমিক ৯১ শতাংশ অংশীদারিত্ব নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে অ্যাপলের সাফারি। এরপরেই আছে ইউসি (১৬ দশমিক ৯১ শতাংশ) এবং অ্যান্ড্রয়েড ব্রাউজার (১১ দশমিক ৭৫ শতাংশ)।