ঢাকা ০১:৪৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পরীক্ষা বন্ধ করলেই করোনা কমে যাবে : ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ  করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) নিয়ে আবার বিতর্কিত মন্তব্য করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, করোনাভাইরাস শনাক্তের পরীক্ষা বেশি হচ্ছে বলেই যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন রাজ্যে সংক্রমণ বেড়ে যাচ্ছে। পরীক্ষা বন্ধ করলেই সংক্রমণ কমে যাবে।

সোমবার বয়স্ক নাগরিকদের সহযোগিতা-বিষয়ক এক সভায় এসব কথা বলেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর আগে করোনাভাইরাস রোধে শরীরে জীবাণুনাশক ইনজেকশন নেয়ার পরামর্শ দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

সভায় ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ‘যদি আপনি পরীক্ষা করা বন্ধ করে দেন তাহলে কোনো করোনা রোগীই পাবেন না। যদি আমরা এই মুহূর্তে করোনা টেস্ট করা বন্ধ করে দেই তাহলে আমরা খুব কমই করোনা রোগী পাব।’

সোমবার সকালে দেয়া এক টুইটবার্তায় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন, ‘অন্য দেশের চেয়ে আমাদের দেশে করোনার পরীক্ষা ব্যাপক আকারে এবং উন্নত পদ্ধতিতে হচ্ছে (আমরা করোনা পরীক্ষার কাজটি খুব ভালোভাবে করেছি)।

এ কারণেই অনেক বেশি সংক্রমণ দেখা যাচ্ছে। পরীক্ষা না হলে বা দুর্বল পদ্ধতিতে পরীক্ষা হলে দেখা যেত, এই দেশে করোনা সংক্রমিত কোনো রোগীই প্রায় নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘করোনার পরীক্ষা হলো দুদিকে ধার দেয়া একটা তরবারি-(একদিকে) এটা আমাদের খারাপ অবস্থাকে প্রকাশ্য করছে; অন্যদিকে, এটা একটি ভালো কাজ।’

যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ২২ লাখের কাছাকাছি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন করোনায়। মারা গেছেন এক লাখ ১৮ হাজারের বেশি।

প্রথমদিকে নিউইয়র্ক সবচেয়ে বেশি সংক্রমিত হলেও বর্তমানে আরকানসাস, টেক্সাস, অ্যারিজোনা, অ্যালাবামা, ওকলাহোমা,-

ফ্লোরিডাসহ অন্তত ২০টি রাজ্যে প্রতিদিনই সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। তারপরও ট্রাম্প প্রশাসনের দাবি, সবকিছু স্বাভাবিক আছে।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সুরেই ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বলেছেন, পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে। তবে নাটকীয়ভাবে বেশি করে পরীক্ষা করানোর কারণে সংক্রমণ বেশি দেখা যাচ্ছে।  সূত্র : সিএনএন

ট্যাগস

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

পরীক্ষা বন্ধ করলেই করোনা কমে যাবে : ট্রাম্প

আপডেট সময় ০২:০৯:২৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুন ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ  করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) নিয়ে আবার বিতর্কিত মন্তব্য করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, করোনাভাইরাস শনাক্তের পরীক্ষা বেশি হচ্ছে বলেই যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন রাজ্যে সংক্রমণ বেড়ে যাচ্ছে। পরীক্ষা বন্ধ করলেই সংক্রমণ কমে যাবে।

সোমবার বয়স্ক নাগরিকদের সহযোগিতা-বিষয়ক এক সভায় এসব কথা বলেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর আগে করোনাভাইরাস রোধে শরীরে জীবাণুনাশক ইনজেকশন নেয়ার পরামর্শ দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

সভায় ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ‘যদি আপনি পরীক্ষা করা বন্ধ করে দেন তাহলে কোনো করোনা রোগীই পাবেন না। যদি আমরা এই মুহূর্তে করোনা টেস্ট করা বন্ধ করে দেই তাহলে আমরা খুব কমই করোনা রোগী পাব।’

সোমবার সকালে দেয়া এক টুইটবার্তায় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন, ‘অন্য দেশের চেয়ে আমাদের দেশে করোনার পরীক্ষা ব্যাপক আকারে এবং উন্নত পদ্ধতিতে হচ্ছে (আমরা করোনা পরীক্ষার কাজটি খুব ভালোভাবে করেছি)।

এ কারণেই অনেক বেশি সংক্রমণ দেখা যাচ্ছে। পরীক্ষা না হলে বা দুর্বল পদ্ধতিতে পরীক্ষা হলে দেখা যেত, এই দেশে করোনা সংক্রমিত কোনো রোগীই প্রায় নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘করোনার পরীক্ষা হলো দুদিকে ধার দেয়া একটা তরবারি-(একদিকে) এটা আমাদের খারাপ অবস্থাকে প্রকাশ্য করছে; অন্যদিকে, এটা একটি ভালো কাজ।’

যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ২২ লাখের কাছাকাছি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন করোনায়। মারা গেছেন এক লাখ ১৮ হাজারের বেশি।

প্রথমদিকে নিউইয়র্ক সবচেয়ে বেশি সংক্রমিত হলেও বর্তমানে আরকানসাস, টেক্সাস, অ্যারিজোনা, অ্যালাবামা, ওকলাহোমা,-

ফ্লোরিডাসহ অন্তত ২০টি রাজ্যে প্রতিদিনই সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। তারপরও ট্রাম্প প্রশাসনের দাবি, সবকিছু স্বাভাবিক আছে।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সুরেই ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বলেছেন, পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে। তবে নাটকীয়ভাবে বেশি করে পরীক্ষা করানোর কারণে সংক্রমণ বেশি দেখা যাচ্ছে।  সূত্র : সিএনএন