ঢাকা ০৫:১৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

করোনায় প্রাণ গেল পাকিস্তানি ক্রিকেটারের

পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার জাফর সরফরাজ করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন

  ক্রীড়া ডেক্স:     প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের আঘাত লাগল এবার ক্রিকেটে। গত কয়েকদিন করোনায় আক্রান্ত বিশ্ব ফুটবলে প্রাণ হারিয়েছেন বেশ কয়েকজন ফুটবল সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিত্ব। এবার ক্রিকেটেও মরন থাবা দিল করোনা।

সোমবার রাতে পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার জাফর সরফরাজ করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। মৃত্যুর আগে পেশোয়ারের একটি বেসরকারি হাসপাতালে তিনদিন ধরে আইসিইউতে ভেন্টিলেটরে ছিলেন ৫০ বছর বয়সী সরফরাজ।

বাঁহাতি মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান সরফরাজ কখনও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার সুযোগ পাননি। ১৯৮৮ থেকে ১৯৯৪ পর্যন্ত বিস্তৃত ঘরোয়া ক্যারিয়ারে খেলেছেন ১৫টি প্রথম শ্রেণি ও ৬টি লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ।

দুই ফরম্যাটের কোনোটিতেই বিশেষ সুবিধা করতে পারেননি সরফরাজ। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে গায়ে ১৫ ম্যাচের ২৫ ইনিংসে ব্যাট করে তার সংগ্রহ ৬১৬ রান, ফিফটি রয়েছে ৪টি। পঞ্চাশ ওভারের ক্রিকেটে তার সংগ্রহ সাকুল্যে ৯৬ রান।

১৯৯৪ সালে মাত্র ৩৫ বছর বয়সে খেলোয়াড়ি জীবনের ইতি টানেন ইতি টানেন তিনি। নাম লেখান কোচিংয়ে। চলতি শতকের শুরুর দিকে পেশোয়ার অনূর্ধ্ব-১৯ এবং মূল দলের কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন সরফরাজ।

প্রাদেশিক ক্রিকেটের পরিচিত মুখ জাফর সরফরাজের আরেকটি পরিচয় তিনি পাকিস্তানের সাবেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার আখতার সরফরাজের বড় ভাই। ১৯৯৭ সালে পাকিস্তানের জার্সিতে ৪টি ওয়ানডে খেলেছেন আখতার। গতবছর জুনে কোলন ক্যান্সারে আক্রান্তে হয়ে পরপারে পাড়ি জমিয়েছেন আখতার।

উল্লেখ্য, এখনও পর্যন্ত সারাবিশ্বে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা প্রায় ১ লাখ ২০ হাজার। এর মধ্যে পাকিস্তানে মৃত্যুবরণ করেছেন ৯৩ জন। দেশটিতে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৫৪৯৬ জন।

ট্যাগস

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

করোনায় প্রাণ গেল পাকিস্তানি ক্রিকেটারের

আপডেট সময় ০৯:১৫:০২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ এপ্রিল ২০২০

  ক্রীড়া ডেক্স:     প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের আঘাত লাগল এবার ক্রিকেটে। গত কয়েকদিন করোনায় আক্রান্ত বিশ্ব ফুটবলে প্রাণ হারিয়েছেন বেশ কয়েকজন ফুটবল সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিত্ব। এবার ক্রিকেটেও মরন থাবা দিল করোনা।

সোমবার রাতে পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার জাফর সরফরাজ করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। মৃত্যুর আগে পেশোয়ারের একটি বেসরকারি হাসপাতালে তিনদিন ধরে আইসিইউতে ভেন্টিলেটরে ছিলেন ৫০ বছর বয়সী সরফরাজ।

বাঁহাতি মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান সরফরাজ কখনও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার সুযোগ পাননি। ১৯৮৮ থেকে ১৯৯৪ পর্যন্ত বিস্তৃত ঘরোয়া ক্যারিয়ারে খেলেছেন ১৫টি প্রথম শ্রেণি ও ৬টি লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ।

দুই ফরম্যাটের কোনোটিতেই বিশেষ সুবিধা করতে পারেননি সরফরাজ। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে গায়ে ১৫ ম্যাচের ২৫ ইনিংসে ব্যাট করে তার সংগ্রহ ৬১৬ রান, ফিফটি রয়েছে ৪টি। পঞ্চাশ ওভারের ক্রিকেটে তার সংগ্রহ সাকুল্যে ৯৬ রান।

১৯৯৪ সালে মাত্র ৩৫ বছর বয়সে খেলোয়াড়ি জীবনের ইতি টানেন ইতি টানেন তিনি। নাম লেখান কোচিংয়ে। চলতি শতকের শুরুর দিকে পেশোয়ার অনূর্ধ্ব-১৯ এবং মূল দলের কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন সরফরাজ।

প্রাদেশিক ক্রিকেটের পরিচিত মুখ জাফর সরফরাজের আরেকটি পরিচয় তিনি পাকিস্তানের সাবেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার আখতার সরফরাজের বড় ভাই। ১৯৯৭ সালে পাকিস্তানের জার্সিতে ৪টি ওয়ানডে খেলেছেন আখতার। গতবছর জুনে কোলন ক্যান্সারে আক্রান্তে হয়ে পরপারে পাড়ি জমিয়েছেন আখতার।

উল্লেখ্য, এখনও পর্যন্ত সারাবিশ্বে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা প্রায় ১ লাখ ২০ হাজার। এর মধ্যে পাকিস্তানে মৃত্যুবরণ করেছেন ৯৩ জন। দেশটিতে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৫৪৯৬ জন।