ঢাকা ০১:১৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

করোনা আতঙ্ক : তাবলিগ ফেরত যুবকের আত্মহত্যা

ছবি (সংগৃহীত)

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ  ভারতের করোনার হটস্পট দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজের তাবলিগ জামাত। সরকারি নির্দেশ অমান্য করে সেখানে ধর্মীয় জমায়েতে উপস্থিত হওয়া অনেকেরই শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে।ওই তাবলিগ জামাতে অংশ নিয়ে বাসায় ফেরার পর করোনা আক্রান্ত হয়েছেন জেনে আত্মহত্যা করেছেন ৩০ বছর বয়সী এক যুবক।ওই যুবক দেশটির আসাম প্রদেশের বাসিন্দা (৩০)।

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিজামুদ্দিনের মারকাজ থেকে বেশ কয়েকজনের সঙ্গে গতমাসে মহারাষ্ট্রের অকোলায় গিয়ে ওঠেন ওই যুবক। সম্প্রতি করোনার লক্ষণ দেখা দিলে নিজেই স্থানীয় হাসপাতালে যান।

গত কয়েকদিন ধরে ওই হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি ছিলেন তিনি। শুক্রবার সন্ধ্যায় তার নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে কভিড-১৯ ভাইরাসের উপস্থিতি নিশ্চিত হন চিকিৎসকরা। করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর শোনার পর ওই যুবক শনিবার সকালে আত্মহত্যা করেন।

হাসপাতাল সূত্র বলছে, আইসোলেশন ওয়ার্ডের শৌচাগারে ব্লেড দিয়ে নিজের গলার নলি কেটে আত্মহত্যা করেন তিনি। তবে দেশটির পুলিশ এ ঘটনায় দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যুর মামলা দায়ের করেছে।

দিল্লির ওই মসজিদে আয়োজিত তাবলিগ জামাতে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে অন্তত ১৩ জন এরই মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। ৬৪৭ জনের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে।

ভারতের মধ্যে এই মুহূর্তে মহারাষ্ট্রেই করোনার প্রকোপ সবচেয়ে বেশি। এখনও পর্যন্ত সেখানে ১ হাজার ৫৬৪ জন কভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন। প্রাণ হারিয়েছেন ১১০ জন।

এছাড়া দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৩৫ এবং মারা গেছেন ৪০ জন। এ নিয়ে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭ হাজার ৬০০ জনে এবং মারা গেছেন ২৪৯ জন। সূত্র- আনন্দবাজার।

 

ট্যাগস

আলিশান চাল, নওগাঁ

বিজ্ঞাপন দিন

করোনা আতঙ্ক : তাবলিগ ফেরত যুবকের আত্মহত্যা

আপডেট সময় ০৫:২৯:২৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ এপ্রিল ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ  ভারতের করোনার হটস্পট দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজের তাবলিগ জামাত। সরকারি নির্দেশ অমান্য করে সেখানে ধর্মীয় জমায়েতে উপস্থিত হওয়া অনেকেরই শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে।ওই তাবলিগ জামাতে অংশ নিয়ে বাসায় ফেরার পর করোনা আক্রান্ত হয়েছেন জেনে আত্মহত্যা করেছেন ৩০ বছর বয়সী এক যুবক।ওই যুবক দেশটির আসাম প্রদেশের বাসিন্দা (৩০)।

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিজামুদ্দিনের মারকাজ থেকে বেশ কয়েকজনের সঙ্গে গতমাসে মহারাষ্ট্রের অকোলায় গিয়ে ওঠেন ওই যুবক। সম্প্রতি করোনার লক্ষণ দেখা দিলে নিজেই স্থানীয় হাসপাতালে যান।

গত কয়েকদিন ধরে ওই হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি ছিলেন তিনি। শুক্রবার সন্ধ্যায় তার নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে কভিড-১৯ ভাইরাসের উপস্থিতি নিশ্চিত হন চিকিৎসকরা। করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর শোনার পর ওই যুবক শনিবার সকালে আত্মহত্যা করেন।

হাসপাতাল সূত্র বলছে, আইসোলেশন ওয়ার্ডের শৌচাগারে ব্লেড দিয়ে নিজের গলার নলি কেটে আত্মহত্যা করেন তিনি। তবে দেশটির পুলিশ এ ঘটনায় দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যুর মামলা দায়ের করেছে।

দিল্লির ওই মসজিদে আয়োজিত তাবলিগ জামাতে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে অন্তত ১৩ জন এরই মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। ৬৪৭ জনের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে।

ভারতের মধ্যে এই মুহূর্তে মহারাষ্ট্রেই করোনার প্রকোপ সবচেয়ে বেশি। এখনও পর্যন্ত সেখানে ১ হাজার ৫৬৪ জন কভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন। প্রাণ হারিয়েছেন ১১০ জন।

এছাড়া দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৩৫ এবং মারা গেছেন ৪০ জন। এ নিয়ে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭ হাজার ৬০০ জনে এবং মারা গেছেন ২৪৯ জন। সূত্র- আনন্দবাজার।